শিল্প মন্ত্রণালয় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৪ মে ২০১৫

পটভূমি

বাংলাদেশ স্বাধীনতা লাভের পূর্বে সাবেক পাকিস্তান কেন্দ্রীয় সরকারের শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন প্রাদেশিক রাজধানী ঢাকায় বানিজ্য ও শিল্প ডিপার্টমেন্ট এর মাধ্যমে শিল্প সম্পর্কিত কর্মকান্ড পরিচালিত হতো। বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৭২ সালে শিল্প ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয় নামে একটি মন্ত্রণালয় গঠন করা হয়। পরবর্তীতে শিল্প ও বাণিজ্য দু’টি আলাদা মন্ত্রণালয় হিসেবে আত্বপ্রকাশ করে। অতঃপর শিল্প মন্ত্রণালয়ের কর্মপরিধিভুক্ত পাট ও বস্ত্র মন্ত্রণালয়, বিনিয়োগ বোর্ড, প্রাইভেটাইজেশন কমিশনও শিল্প মন্ত্রণালয় থেকে পৃথক হয়ে যায়। শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন বর্তমানে ৪টি সংস্থা, ৬টি দপ্তর/অধিদপ্তর এবং একটি বোর্ড কাজ করছে। এগুলোঃ

 

সংস্থাঃ

১.         বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাষ্ট্রিজ করপোরেশন (বিসিআইসি)

২.         বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প  করপোরেশন (বিএসএফআইসি)

৩.         বাংলাদেশ ইস্পাত ও প্রকৌশল করপোরেশন (বিএসইসি)

৪.         বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক)

 

দপ্তরঃ

১.         বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই)

২.         বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব ম্যানেজমেন্ট (বিআইএম)

৩.         বাংলাদেশ শিল্প ও কারিগরি সহায়তা কেন্দ্র (বিটাক)

৪.         ন্যাশনাল প্রোডাকটিভিটি অর্গানাইজেশন (এনপিও)

৫.         পেটেন্ট, ডিজাইন ও ট্রেডমার্কস অধিদপ্তর

৬.         প্রধান বয়লার পরিদর্শকের কার্যালয়

বোর্ডঃ

বাংলাদেশ এ্যাক্রিডিটেশন বোর্ড

বর্তমানে ৬টি অনুবিভাগের মাধ্যমে শিল্প মন্ত্রণালয়ের কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। অনুবিভাগগুলো হচ্ছেঃ

১.         গবেষণা ও উন্নয়ন অনুবিভাগ

২.         প্রশাসন ও সমন্বয় অনুবিভাগ

৩.         স্বশাসিত সংস্থা অনুবিভাগ

৪.         অডিট ও অধিদপ্তর অনুবিভাগ

৫.         বিরাষ্ট্রীয়করণ আইন, নীতি ও আন্তর্জাতিক সহযোগিতা অনুবিভাগ

৬.         পরিকল্পনা অনুবিভাগ

 

শিল্প মন্ত্রণালয়ে বর্তমানে ০১ জন সচিব, ০৫ জন অতিরিক্ত সচিব, ১৫ জন যুগ্ম-সচিব, ০১ জন যুগ্ম-প্রধান, ১৭ জন উপ-সচিব, ০১ জন উপ-প্রধান, ০১ জন সিস্টেম এনালিস্ট, ১৬ জন সিনিয়র সহকারি/সহকারি সচিব, ০৪ জন সিনিয়র সহকারি প্রধান/সহকারি প্রধান, ০১ জন সহকারি প্রোগ্রামার ও  ০১ জন হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা কর্মরত আছেন।

 


Share with :
Facebook Facebook